1. atikur.bdco@gmail.com : admin :
★★প্রসঙ্গঃ কোরবানি★★ - www.atikurbd.com
শিরোনাম :
করোনায় ২৪ ঘন্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু করোনায় ২৪ ঘন্টায় আরো ৩৩ জনের মৃত্যু ফুলকোর্ট সভা বৃহস্পতিবার: সুপ্রিম কোর্টের স্বাভাবিক বিচারকার্যক্রম প্রসঙ্গ করোনায় ২৪ ঘন্টায় আরো ৫০ জনের মৃত্যু জাহিদ হাসান ঈদ স্মৃতি — জাহিদ হাসান করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ জনের মৃত্যু বন্যা পরিস্থিতিতে সিপিবির গভীর উদ্বেগ সরকারের যথাযথ উদ্যোগের অভাবে হাহাকার বাড়ছে মনের কথা – আতিকুর রহমান করোনায় ২৪ ঘন্টায় আরো ২৮ জনের মৃত্যু ৫ আগস্ট থেকে খুলছে সব নিম্ন আদালত ঈদের পর ৬ আগস্ট থেকে চেম্বার আদালত ভার্চ্যুয়ালি চলবে মোঃ দেলোয়ার হোসেন ঈদুল আযহা — মোঃ দেলোয়ার হোসেন ★★প্রসঙ্গঃ কোরবানি★★ লেখা প্রতিযোগিতা করোনা ভাইরাসের কারণে চার মাস বন্ধ থেকে ঈদুল আযহার পরে খুলছে বাংলাদেশের আদালত: আইনমন্ত্রী অবিলম্বে নিয়মিত আদালত চালু করতে প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির লিখিত পরীক্ষা ২৬ সেপ্টেম্বর করোনায় আরো ৩৫ জনের মৃত্যু অবকাশকালীন ছুটিতে হাইকোর্টে ১২ ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ গঠন ঈদের ছুটিতে আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ আলহাজ্ব মোঃ জয়নাল আবেদীন খান মান্না দে’র কালজয়ী গান কফি হাউজের অন্যতম চরিত্র ঢাকার মঈদুল এখন গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসাধীন। বঙ্গভবন থেকে গণভবন মানবপ্রাচীর’ কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানিয়েছে সিপিবি গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র সাভার আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির উদ্যোগে মানববন্ধন পৃথিবীর পথে পথে স্বাস্থ্যমন্ত্রী, মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের অপসারণের দাবিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় ঘেরাও বিষন্নতায় ঘেরা এই পৃথিবী করোনায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু তালিকাভুক্তির দাবিতে বার কাউন্সিলের সামনে শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের অবস্থান, অসুস্থ-৭ এখনই স্বাভাবিক বিচার ব্যবস্থা ফিরছে না আদালতে। করোনায় আরো ৫৫ জনের মৃত্যু রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধের সিন্ধান্ত বাতিল করে জাতীয়স্বার্থে পাটকল চালু রেখে আধুনিকায়ন ও লাভজনক কর -প্রগতিশীল সংগঠনসমূহ বিক্ষোভ সমাবেশে সিপিবি’র নেতৃবৃন্দ রাষ্ট্রীয় পাটকলসমূহ বন্ধ ঘোষণা মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকারের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা একাধিকবার বিদ্যুৎ-জ্বালানির দাম বাড়ানোর স্বার্থে সংসদে বিল উত্থাপনের প্রতিবাদ সিপিবির আহুত ভালোবাসা – মোহাম্মদ জাফর সাদেক সরকারের গণবিরোধী সিদ্ধান্তের বিরদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে সিপিবি’র ডাক ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরো ৪০ জনের মৃত্যু পৃথিবীর সৃষ্টি রহস্য – পর্ব ১ রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল বন্ধের নয়া ষড়যন্ত্রে বাম জোটের উদ্বেগ ও প্রতিবাদ দালান জাহান মোঃ জাফর সাদেক জন্মদাগ – মোঃ জাফর সাদেক করোনায় ২৪ ঘন্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু ভার্চুয়াল আদালত অব্যাহত রাখতে সংসদে খসড়া আইন উত্থাপন সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর ৮৫-তে পদার্পণ করোনাকালে শ্রমিক ছাঁটাই-নির্যাতন বন্ধের দাবি সাংগ্রাম, গৌরব , উন্নয়ন, ও ঐতিহ্যের ৭১ বছর ইতিহাস….. দেশে করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়াল দেশের ১০ জেলার ২৭ এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৩৯ জনের মৃত্যু করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিক কামাল লোহানী মারা গেছেন নিপুন নগরী ইসরাত জাহান মোঃ আতিকুর রহমান রোববার তিন ঘণ্টা সূর্যের ওপর অন্ধকার থাকবে! বীর মুক্তিযোদ্ধা মনজুর আলী ননতুর মৃত্যুতে সিপিবি’র শোক প্রকাশ ব্যর্থ প্রেম – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় করোনাভাইরাসে মৃত্যু আরও ৩৮ জনের আইনজীবীদের করোনা চিকিৎসায় তিন হাসপাতাল করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৪৩ জনের মৃত্যু ভার্চ‌্যুয়াল পদ্ধ‌তি‌তেই চল‌বে সারাদেশের অধস্তন আদাল‌তের বিচার কার্যক্রম। করোনায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৫৩ জনের মৃত্যু ইয়েলোতে নয়, রেড জোনেই থাকবে সাধারণ ছুটি লাল (রেড) ও হলুদ (ইয়োলো) জোনে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। ‘রেড জোন ‘ হিসেবে চিহ্নিত যেসব এলাকা চে গুয়েভারার জীবনী করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ৪৪ মৃত্যু সিপিবির প্রাথমিক বাজেট-প্রতিক্রিয়া করোনায় ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪৬ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৩৪৭১ আরজ আলী মাতুব্বর কাজী নজরুল ইসলাম সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় হঠাৎ নীরার জন্য – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৭ জন ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে শুনানি চলবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩৭ আক্রান্ত ৩১৯০ করোনা পরিস্থিতিতে বাজেট ঘোষণার প্রাক্কালে সরকারের প্রতি সিপিবি লেখা আহবান প্রাক বাজেট কর্মসূচিতে যুব ইউনিয়নের দাবী অবিলম্বে এনজিও ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে সিপিবি ভাষাসৈনিক কমরেড মিরান উদ্দিন মাস্টারের মৃত্যুতে সিপিবির শোক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৪৫ জনের মৃত্যুর রেকর্ড মানুষ – কাজী নজরুল ইসলাম জোনিং করে লকডাউনের প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন এসএসসি : ফল পুনর্মূল্যায়নে রেকর্ডসংখ্যক আবেদন করোনায় ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৪২ আক্রান্ত ২৭৩৫ ঢাকার ৩৮ এলাকা আংশিক লকডাউন ঘোষণা করোনায় ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪২ মৃত্যু রেকর্ড রাজধানীর দুই এলাকা দিয়ে কাল শুরু হচ্ছে জোলা ভিত্তিক লকডাউনের কাজ শ্রমিক ছাঁটাই করা হলে, আপনিও ছাঁটাই হয়ে যাবেন’- মন্টু ঘোষ বিজিএমইএ-র বক্তব্যে সিপিবির হুঁশিয়ারি শ্রমিক ছাঁটাইয়ের পরিণতি হবে ভয়াবহ করোনায় ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩৫, আক্রান্ত ২৬৩৫ অমানবিক গার্মেন্ট মালিকরা –কে এম মিন্টু পোশাক কারখানায় শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষনা মুনাফালোভী মালিকদের নগ্ন চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ- টিইউসি। জুন থেকেই পোশাক কারখানায় শ্রমিক ছাঁটাই: রুবানা হক করোনা উপসর্গ দেখা দিলে কোথায় যাবেন জেনে নিন করোনা ভাইরাসে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩০ নতুন আক্রান্ত ২৮২৮
ঘোষণা :
আমাদের ওয়েব সাইটের পক্ষ থেকে সকলকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা।          সকল সম্মানিত লেখক - লেখিকাদের সবিনয়  দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে।  আমাদের এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন টপিকের উপর আপনাদের  বিভিন্ন প্রবন্ধ,  গল্প, উপন্যাস, কবিতা,  ভ্রমণ কাহিনী ইত্যাদি পাঠাতে পারবেন। আপনাদের সমস্ত মূল্যবান লেখা সমূহ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। যারা আমাদের ওয়েবসাইটে লেখা পাঠাতে চান তারা নিম্নোক্ত ই -মেইল ঠিকানায় লেখা পাঠাতে পারবেন। অন্য কারো লেখা কপি করা গ্রহণযোগ্য হবে না। কোন প্রকারের অশ্লীল ভাষায় লেখা গ্রহণযোগ্য হবে না। লেখার সাথে কোন ছবি দিতে চাইলে সেই ছবিটা লেখার সাথে পাঠাবেন। লেখার নিচে আপনার নাম দিবেন। ই-মেইল ঠিকানা  atikur.bdco@gmail.com । কোন বিষয়ে এডমিনের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজে মেসেজ পাঠাতে পারবেন  আমাদের  সাথে যোগাযোগ করতে কোনো প্রকার  সংকোচ বোধ করবেন না। আপনার প্রতিটি লেখা আমাদের কাছে অতি  মূল্যবান ।     আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

★★প্রসঙ্গঃ কোরবানি★★

  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই, ২০২০
  • ৮৪ বার পড়া হয়েছে

★★প্রসঙ্গঃ কোরবানি★★

দীর্ঘদিনের ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতার প্রথায় সমাজে প্রচলিত গরু – খাসি কোরবানি দিয়ে কোরবানির ঈদের উৎসব পালন করা হয়। আমি আমার পোস্টে ধর্মের বাহিরের নিয়ম বা প্রথাগুলোর প্রতি বেশি গুরুত্বারোপ করিনা কখনোই কেননা প্রথা তো সবাই মানেই, পালনও করে! সেগুলা এমনিই প্রচারিত হয় আলাদা করে আমার প্রচার করে বলার কিছু নেই! প্রথা মানাতে আনন্দ আছে উৎসব আছে, ভোগ আছে আর সাধারন কিছু কষ্ট আছে, অনেক অপ্রিয় কিছু নেই, তাই সবাই কম বেশি মানে। যেটা মানুষ মানতে চায় না সেটা হলো প্রথার ভেতর যে স্রষ্টার আসল নির্দেশ, আসল সত্য সেটাই কেউ মানতে চায় না, দেখিয়ে দিলেও দেখতে চায় না, বুঝিয়ে দিলেও বুঝতে চায় না বরং সেটা সকলেরই অপ্রিয়!! তাই অল্পের দলে থাকা অধম আমি অপ্রিয় সত্যগুলাই সবসময় একটু বেশি ফোকাস করি। 

স্রষ্টা বলেছেন মধ্যমপন্থা উত্তম। তাই সবকিছুতে মধ্য পয়েন্ট থেকে ভাবাই নিরপেক্ষতা ও সাম্যতা। মধ্যমপন্থা মানে কোন পাশেই ঝুকে পড়া না বরং সমান ভারসাম্য রাখা। তাই কোরবানির মাংস খাওয়া নিয়ে অতি লোক দেখানো উৎসব নাচন যেমন অনুচিত তেমনি এত হিপোক্রেটও হওয়া উচিত না যে কোরবানির বিরোধিতা করা পশুপ্রেমের নাম করে যেখানে মানুষ নিজে প্রতি সপ্তাহে হাস মুরগীর রান চিবিয়ে আয়েশ করে খায়, সারাবছর চিকেনের বাহারী আইটেম খায় আবার ঈদ আসলে আলগা পশুপ্রেম দেখায় কেউ কেউ! যেহেতু আমি নিজেই হাস মুরগী যা জীব পাই চিবিয়ে ভীষণ মজা করে আয়েশ করে খাই আবার খাইতাছি সেটা দেখিয়ে দেখিয়ে ফেসবুকে পোস্টও দেই তো সেখানে শুধু ধর্মের কথা আসলেই আপত্তি থাকবে কেন?!! তাই ঈদে গরুর মাংস খাওয়া নিয়ে হুট করে অতি উথলে পড়া ভালোবাসা দেখানোটাও একটু অতিভক্তি হয়ে যায়! অতিভক্ষণ যেমন ইবাদাতের লক্ষণ না তেমনি অতিভক্তিও মনের চোরামি বা হিপোক্রেসির লক্ষণ! 

স্রষ্টার প্রতিটা ইবাদাতের দুইটা রুপ থাকে একটা মেজাজি বা বাহ্যিক রুপ আরেকটা হলো ভেতরের সত্য রুপ বা হাকিকি রুপ! হাকিকি সত্যটা গ্রহন করতে না পারলে মেজাজিটা কোরবানি হয়না বরং সাধারণ মাংস ভোগের উৎসব হয়! সমাজে যখন মেজাজিটা অধিক আধিপত্য পেতে থাকে তখন মনের সত্যের মৃত্যু ঘটতে থাকে যদি মনের সত্যটা কেউ আগে ধারণ করতে না পারে! মেজাজি গরু খাসি কুরবানির মূল উদ্দেশ্য হলো মানুষকে আসল সত্যটা মনে করিয়ে দেয়া! কেননা প্রকাশ্য বিষয় থাকলেই অপ্রকাশ্যটা মনে একটু হলেও নাড়া দেয়!! এজন্য স্রষ্টা কোরানে বলেই দিয়েছেন কোরবানির পশুর রক্ত মাংস তাঁর কাছে কখনো পৌছায় না যেটা পৌঁছায় সেটা হলো মনের তাকওয়া মানে পবিত্রতা! মনের কোন পবিত্রতাটা এবার বিসর্জনের মাধ্যমে অর্জন করতে পারলাম সেটাই পশুর বাহ্যিক রক্ত মাংসের চেয়ে স্রষ্টার নিকট অধিক প্রিয়। 

স্রষ্টাপ্রেমিকদের জন্য কোরবানি একটা বিসর্জনের শিক্ষা। যখন কোন সত্তা স্রষ্টার সাথে কানেক্টেড হতে থাকে তখন স্রষ্টার একটা ইচ্ছার জন্য নিজের প্রিয়জন বা প্রিয় কিছুকেও মন থেকে বিসর্জন দিতে হয়। এটা মনকে বৈষয়িক মোহবন্ধন থেকে মুক্ত করে! কেননা মৃত্যুর পর বৈষয়িক জীবনের সবচেয়ে প্রিয় জনকেও ছেড়ে যেতে হয় এটাই অপ্রিয় সত্য। এছাড়া আমাদের সকলেরই অধিক প্রিয় বৈষয়িক রিপুর লোভ মোহ মায়া আছে যেগুলা ত্যাগ করার শিক্ষা বেঁচে থাকতেই অর্জন করতে হয়। তাহলেই মৃত্যুরুপ সত্যকে সাদরে আলিঙ্গণ করা যায়, শাস্তিরুপে না। তাই সে সত্যকে যুগে যুগে সকল স্রষ্টাপ্রেমিকই জীবন থাকতেই কষ্ট করে মন থেকে গ্রহন করে নিয়ে হয়েছেন অমর!! কোরবানির প্রচলনও আসে এই প্রিয় পুত্র কোরবানির পরীক্ষার মধ্য দিয়ে! যার মানে দাঁড়ায় স্রষ্টার সাথে নিজের সবচেয়ে প্রিয় মানুষকে বা প্রিয় কোন জিনিসকেও শরীক করা যায় না! তার ইচ্ছাই সর্বময়! আজকে ইব্রাহীম নবীর কোরবানি কবুল হওয়াতে আমরা উৎসব করি ভালো কথা কিন্তু স্রষ্টা যদি জিজ্ঞেস করেন তুমি নিজে কি শিক্ষা অর্জন করেছিলে কোরবানি উৎসব থেকে? তুমি নিজে কোন প্রিয় জিনিসটা কোরবানি দিয়েছো আমার জন্য? তখন কি উত্তর দেবো? গরু? খাসি? বাজার থেকে কিনে আনা একটা গরু খাসি কিভাবে আমাদের সবচেয়ে প্রিয় হতে পারে? 

 তাই কোরবানির মূল উদ্দেশ্য যে লোকেরা ভুলে যায় সে লোকেরা না নিজের নিয়তকে কোনদিন পবিত্র করতে পারে আর না নিজের মোহরুপ বন্ধন থেকে আজীবন মুক্ত হতে পারে!! 

আর মেজাজি পশু কোরবানি করার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষকে বিতরন করার মাধ্যমে ত্যাগের উৎসব পালন। ত্যাগের আনন্দ গ্রহণ। এটা গরীবদের জন্য মাংস খাবার আনন্দ কিন্তু যারা অবস্থাশালী তাদের জন্য ত্যাগের আনন্দটাই প্রকৃত আনন্দ। ধনীরা সারাবছর ভোগই করে তো ঈদেও যদি সেটাই করতে থাকে তাহলে ত্যাগ টা কোথায? অধিকাংশটা বিতরণের মধ্যেই আছে ত্যাগ। কিন্তু দুঃখজনক হলো পশু কোরবানিটা এখন ধনীদের ধর্মীয় উৎসব হিসেবে এতই বেশি প্রচলিত হলো যে কোথায় কোরবানির মূল উদ্দেশ্য ছিলো প্রিয় বিষয়গুলোর লোভ মোহ বিসর্জন, সেখানে মানুষ বরংচ এখন অতিরিক্ত খরচ করে আহার ভোগের বিরাট আয়োজন করে বরং আরো বেশি ভোগ মোহে আটকে যায়!! গরু খাসি যদি কোরবানি দিয়ে বেশিরভাগটা বিতরণই না করে ফ্রিজ ভর্তি করার নিয়ত থাকে তবে এর মেজাজি উদ্দেশ্যই বা কতটা সফল হলো!!? এখানে দানের চেয়ে বেশি মূখ্য বিষয় হলো কার কত বড় ফ্রিজ ভরে কয়েকমাসের মাংস মজুদ করতে পারে সেই প্রতিযোগিতা!!  কে কয় টাকার গরু কিনলো সে বাহাদুরী! মানে ইবাদাতের উদ্দেশ্য এবং দানের চেয়ে বেশি বরং সামাজিক প্রতিযোগিতা সম্মানের বিষয়রুপ একটা ইস্যুতে পরিণত হচ্ছে অনেক ক্ষেত্রে। 

 এজন্য এবার ঈদে লক্ষ লক্ষ গরু খাসি কোরবানি হবার পরও অধিকাংশ মানুষেরই মনের কোন নৈতিক পরিবর্তন হবে না!! বরং অতিরিক্ত আহার ভোগ করে নিজের স্বাভাবিক নফসের নিয়ন্ত্রণ হারাবে! প্রয়োজনের অতিরিক্ত মাংস ভোগ করা মানুষের নফসকে আরো লোভী, ভোগী ও হিংস্র মনোভাবের করে তোলে!! কোরবানির নামে ত্যাগের শিক্ষা থেকে ত্যাগই বিলুপ্ত হয়ে ভোগই প্রাধান্য পেলে সেখানে ত্যাগটা আর থাকে কোথায়? নিজের প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোন আহার ভোগই মানুষকে সুন্দর ও ত্যাগী মানুষ হতে দেয় না বরং কাফের ও হিংস্র পশুস্থরেই নামিয়ে দেয়, এ কথা আমি বলিনি বরং স্রষ্টাই বলেছেন।

 “”আর যারা কাফের, তারা ভোগ-বিলাসে মত্ত থাকে এবং চতুস্পদ জানোয়ারের মত আহার করে। তাদের বাসস্থান জাহান্নাম”” [সূরা মুহাম্মদ : ১২]

তাই কোরবানি মানে অতিরিক্ত লোক দেখানো খরচ করে, লোক দেখানো দান করে বেশিরভাগটা নিজের পেট পূজা করার উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ করা না। এটা কিন্তু কোরবানির প্রকৃত শিক্ষা না। এজন্য আস্ত তিনটা গরু কোরবানি দিয়ে দুইটা নিজের ফ্রিজে ভরে বাকী একটা লোক দেখানো বিতরন করা মানে নিজের উদর পূর্তির জন্য অপচয় করা। তার চেয়ে তিনটার জায়গায় একটা মাত্র গরু কোরবানি দিয়ে বেশিরভাগটা বিতরণ করে দেয়াটাই সাম্য ও সুষম বন্টন এবং অতিরিক্ত পশুর প্রাণও অপচয় হলো না তাতে করে। 

 তাই কোরবানি মানে কখনোই সামাজিক আহার ভোগের উৎসব করা না বরংচ প্রথমত, কোরবানি মানে প্রিয় জিনিস মন থেকে বিসর্জন দেয়া, মানে প্রিয় যে কোন কিছু বা যে কোন জন থেকে স্রষ্টাকে উর্ধ্বে রাখা! আর দ্বিতীয়ত পশু কোরবানি দেয়া মানে নিজের পশু প্রবৃত্তিকে বিসর্জন দেয়া। তৃতীয়ত, মেজাজি বা প্রকাশ্য কোরবানির মাধ্যমে অধিকাংশ অংশটাই অসহায় গরিবদের আহারের জন্য দান করে দেয়া এবং নিজে পরিমিত কিছু আহার গ্রহন করা। এ সত্য নিয়ত ও উদ্দেশ্য নিয়ে কেউ কোরবানি দিলে অবশ্যই তার কোরবানি স্রষ্টার দরবারে গৃহীত হবে।

লিখেছেন — ইসরাত জাহান

 89 total views,  5 views today

মন্তব্য করুন

আপনার লেখা প্রকাশ করুন

লেখা গুলো ই-মেইলে পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

এই বিষয়টি আপনার যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

মন্তব্য বন্ধ আছে।

এই বিভাগের আরো লেখা
© All rights reserved © 2019 www.atikurbd.com
Customized BY NewsTheme